English rendering of PM's remarks on the situation in India-China Border areas সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

ভারত-চীন সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের বাংলা অনুলিখন

ভারত-চীন সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের বাংলা অনুলিখন

১৭ জুন ২০২০ পিআইবি দিল্লী কর্তৃক প্রকাশিত, সময়ঃ ৩টা ৩৫ মিনিট

বন্ধুগণ,

ভারত মাতার বীর সন্তানেরা গালওয়ান উপত্যকায় আমাদের মাতৃভূমিকে রক্ষা করতে গিয়ে সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করেছেন।

দেশের সেবায় এই মহান ত্যাগের জন্য আমি তাঁদের প্রণাম জানাই, কৃতজ্ঞচিত্তে তাঁদের শ্রদ্ধা জানাই।

এই শোকাবিভূত সময়ে আমি শহীদদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি।

আজ গোটা দেশ আপনাদের সঙ্গে আছে, দেশের সহানুভূতি আপনাদের সঙ্গে আছে।

আমাদের শহীদদের এই আত্মত্যাগ বৃথা যাবে না।

পরিস্থিতি যা-ই হোক না কেন, ভারত দেশের প্রতি ইঞ্চি জমি এবং আত্মসম্মান দৃঢ়তার সাথে রক্ষা করবে।

ভারত সাংস্কৃতিকভাবে একটি শান্তিকামী দেশ। আমাদের ইতিহাস শান্তির ইতিহাস।

ভারতের আদর্শিক মন্ত্র হল – লোকা: সমস্তা: সুখিনো ভবন্তু (জগতের সকল প্রাণি সুখী হোক)।

আমরা প্রত্যেক যুগে গোটা পৃথিবীর এবং সমগ্র মানবতার শান্তি কামনা করেছি।

আমরা সবসময় আমাদের প্রতিবেশীদের সঙ্গে সহযোগিতা এবং বন্ধুত্বপূর্ণ উপায়ে মিলেমিশে কাজ করেছি। সর্বদা তাঁদের উন্নয়ন ও কল্যাণ কামনা করেছি।

আমাদের যেখানে মতপার্থক্য হয়েছে, আমরা সর্বদা চেষ্টা করেছি যে পার্থক্যগুলি যাতে বিরোধে পরিণত না হয়।

আমরা কখনোই কাউকে উস্কানি দিই না, তবে আমরা আমাদের দেশের অখণ্ডতা এবং সার্বভৌমত্বের সঙ্গে আপোষো করি না। যখনই প্রয়োজন হয়েছে, আমরা আমাদের অখণ্ডতা এবং সার্বভৌমত্ব রক্ষায় আমাদের শক্তি প্রদর্শন করে সক্ষমতা প্রমাণ করেছি।

ত্যাগ এবং তিতিক্ষা আমাদের জাতীয় চরিত্রের অঙ্গ, তবে একই সাথে বিক্রম এবং বীরত্বও আমাদের দেশের চরিত্রের অংশ।

আমি দেশকে আশ্বস্ত করতে চাই, আমাদের সেনাদের আত্মত্যাগ বৃথা যাবে না।

ভারতের অখণ্ডতা এবং সার্বভৌমত্ব আমাদের জন্যে সর্বাগ্রে এবং এর সুরক্ষা থেকে কেউ আমাদের থামাতে পারবে না।

এ নিয়ে কারও বিন্দুমাত্র সন্দেহ থাকা উচিত নয়।

ভারত শান্তি চায়। তবে উস্কানি দেওয়ার জবাব ভারত যথোপযুক্তভাবেই দেবে।

দেশবাসীর গর্ব করা উচিত যে আমাদের সৈন্যরা লড়াই করতে করতে শহীদ হয়েছেন। আপনাদের সকলের প্রতি আমার অনুরোধ, দুই মিনিট মৌনতা পালন করে দেশের এই বীর সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করি!

*****