High Commission of India hosts Ayurveda Day on  23rd October 2022 সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

ভারতীয় হাই কমিশন কর্তৃক ২৩ অক্টোবর ২০২২-এ আয়ুর্বেদ দিবসের আয়োজন

প্রেস রিলিজ

ভারতীয় হাই কমিশন কর্তৃক ২৩ অক্টোবর ২০২২-এ আয়ুর্বেদ দিবসের আয়োজন

               ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশন ২৩ অক্টোবর, ২০২২ তারিখে চ্যান্সারি প্রাঙ্গণে আয়ুর্বেদ দিবস ২০২২-এর আয়োজন করে। আয়ুর্বেদ এবং বিকল্প ওষুধের সাথে সম্পর্কিত প্রায় ৮৫ জন অংশগ্রহণকারী এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্বরা হলেন ডাঃ এ কে এম আমিরুল মুর্শেদ, মহাপরিচালক, মেডিকেল এডুকেশন; ডাঃ হাবিবুর রহমান, ডিরেক্টর হোমিও এন্ড ট্র্যাডিশনাল মেডিসিন; ডাঃ মোঃ আবু জাহের, লাইন ডিরেক্টর অল্টারনেটিভ মেডিসিন কেয়ার; ডাঃ মোঃ গাউসুল আজিম চৌধুরী, ডেপুটি ডিরেক্টর অল্টারনেটিভ মেডিসিন; মোঃ জামাল উদ্দিন, ডেপুটি এমডি, হামদর্দ গ্রুপ; প্রফেসর ড. ফারুক-উজ-জামান চৌধুরী, ভাইস-চ্যান্সেলর, হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয়; ডাঃ স্বপন কুমার দত্ত, অধ্যক্ষ, গভ. ইউনানী ও আয়ুর্বেদিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল। হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয় এবং সরকারি ইউনানি ও আয়ুর্বেদিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, ঢাকার অনেক অধ্যাপক, শিক্ষক ও শিক্ষার্থী এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

               ডিজিএমই যখন আয়ুর্বেদ বিষয়ে স্নাতকোত্তর/পিএইচডি করার উপর জোর দিচ্ছিলেন, তখন হামদর্দ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি আয়ুর্বেদকে সমস্ত ওষুধের মা বলে অভিহিত করেন। সরকারি ইউনানি এবং আয়ুর্বেদিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের অধ্যক্ষ মানবজাতির জন্য আয়ুর্বেদের উপকারিতা সম্পর্কে বলেছেন।

               প্রায় ৫৯ জন বাংলাদেশি শিক্ষার্থী ভারতের বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানে স্নাতক, স্নাতকোত্তর এবং পিএইচডি পর্যায়ে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল ফর কালচারাল রিলেশনস (আইসিসিআর) কর্তৃক প্রদত্ত আয়ুষ (আয়ুর্বেদ যোগ ইউনানী সিদ্ধ হোমিওপ্যাথি) পূর্ণ বৃত্তি গ্রহণ করেছে। কিন্তু এই শিক্ষার্থীদেরকে এখনও বাংলাদেশে প্র্যাকটিশনার লাইসেন্স দেওয়া হয়নি, যার সত্যতা উপস্থিত কর্তৃপক্ষের কাছে তুলে ধরা হয়।

               বাংলাদেশে ভারতীয় হাইকমিশনের দ্বিতীয় সচিব (শিক্ষা ও কনস্যুলার), জনাব রাজিন্দর সিং, ইভেন্ট চলাকালীন ডিজিএমই কর্মকর্তা, অংশগ্রহণকারী এবং শিক্ষার্থীদের সাথে মতবিনিময় করেন। তিনি আমাদের দৈনন্দিন জীবনে আয়ুর্বেদের গুরুত্ব বর্ণনা করে জোর দিয়ে বলেন যে, বাংলাদেশি আয়ুর্বেদিক প্রতিষ্ঠান এবং ভারতীয় হাইকমিশনের মধ্যে সম্পর্ক বাড়তে হবে এবং আয়ুর্বেদকে বাংলাদেশের জনসাধারণের মধ্যে পরিবেশন ও প্রচার করা উচিত।

২৩ অক্টোবর, ২০২২