Visit of Secretary, Ministry of Ports, Shipping, Waterways (MoPSW) to Dhaka সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

বন্দর, জাহাজ এবং জলপথ মন্ত্রক (এমওপিএসডব্লিউ)-এর সচিব মহোদয়ের ঢাকা সফর

ভারতীয় হাই কমিশন
ঢাকা

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

  ভারত সরকারের বন্দর, জাহাজ এবং জলপথ মন্ত্রক (এমওপিএসডব্লিউ)-এর সচিব শ্রী টি কে রামচন্দ্রনের নেতৃত্বে একটি ভারতীয় প্রতিনিধিদল ২০২৩ সালের ১৮-২০ ডিসেম্বর ঢাকা সফর করেন এবং ঢাকায় বাংলাদেশ সরকারের নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব জনাব মোঃ মোস্তফা কামালের নেতৃত্বে থাকা বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের সাথে বৈঠক করেন।

২. দুই দিন সময়সীমায়, অভ্যন্তরীণ জলপথ ও উপকূলীয় নৌপরিবহণের মাধ্যমে সংযোগ বাড়ানো সম্পর্কিত বিষয়গুলো তিনটি পৃথক দ্বিপাক্ষিক বৈঠক প্রক্রিয়ার অধীনে আলোচনা করা হয়েছে, সেগুলো হলো - নৌ-পরিবহণ সচিব পর্যায়ের আলোচনা, ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন ও বাণিজ্য-বিষয়ক (পিআইডব্লিউটিএন্ডটি) প্রটোকলের অধীনে স্থায়ী কমিটি, এবং ভারত থেকে ও ভারত পর্যন্ত পণ্য পরিবহণের জন্য চট্টগ্রাম ও মোংলা বন্দর ব্যবহার সংক্রান্ত আন্তঃসরকারি কমিটি (এসিএমপি)।

৩. উভয় পক্ষই দুই দেশ ও অত্র অঞ্চলের মধ্যে বাণিজ্য ও নৌযোগাযোগের উন্নতির বৃহত্তর উদ্দেশ্য নিয়ে বেশ কিছু বিষয়ে ফলপ্রসূ আলোচনা করেছে এবং অন্যান্য বিষয়ের মধ্যে 'তৃতীয় দেশ' বাণিজ্যের সুবিধার্থে ট্রান্সশিপমেন্ট পোর্টস অব কল অবহিতকরণ, পিআইডব্লিউটিএন্ডটি-এর অধীনে বিদ্যমান পোর্টস অব কল-সমূহের সম্প্রসারণসহ বিভিন্ন বিষয়ে অগ্রগতি অর্জন করেছে।

৪. এই বৈঠকসমূহ দুই দেশের মধ্যে উপকূলীয় ও অভ্যন্তরীণ জলপথ সংযোগের বিষয়ে আলোচনা ও বিশ্লেষণ করার একটি সুযোগ দেয় যা বাণিজ্যিক-ভিত্তিক পরিবহণকে আরও বৈচিত্র্যময় রূপ প্রদান করে। অধিকন্তু, যখন ভারত উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলোতে মনোনিবেশ করে দ্বিপাক্ষিক ও আঞ্চলিক সংযোগ উন্নত করতে চায়, তখন বাংলাদেশেরও ভারতীয় সমুদ্রবন্দরগুলো মাধ্যমে ট্রানজিট সুবিধা ব্যবহার করে তৃতীয় দেশে রপ্তানির বিকল্প উপায়সমূহ অন্বেষণ করার সুযোগ রয়েছে৷

৫. উভয় প্রতিনিধি দলে অন্যান্যদের মধ্যে সংশ্লিষ্ট নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়, অভ্যন্তরীণ নৌপথ এবং বন্দর কর্তৃপক্ষের প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকা
ডিসেম্বর ২১, ২০২৩

***