শিলিমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে হাই কমিশনারের বক্তব্য Statements & Speeches

শিলিমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে হাই কমিশনারের বক্তব্য

ভারতীয় হাই কমিশন

ঢাকা

 

শিলিমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে হাই কমিশনারের বক্তব্য

[২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮]

বেগম সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি, সংসদ সদস্য, মুন্সিগঞ্জ-২

জনাব হাফিজ আল আজাদ বারেক, সম্পাদক, উপজেলা আওয়ামী লীগ

জনাব জহিরুল হক লিটন ঢালী, চেয়ারম্যান, আউটশাহী ইউনিয়ন পরিষদ

জনাব শেখ আবদুল করিম, চেয়ারম্যান, মধুপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ

জনাব ফজলুল হক স্বপন, সভাপতি, বিদ্যালয় কমিটি

জনাব সৈয়দ আহমেদ, প্রধান শিক্ষক, শিলিমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ,

 

সুপ্রভাত!

আবারও এই বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে উপস্থিত হতে পেরে আমি অত্যন্ত আনন্দিত।

আপনাদের নিশ্চয়ই মনে আছে, আমি গত বছরের জুলাই মাসে এই বিদ্যালয়ে এসেছিলাম।

বিদ্যালয়ের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, প্রমত্তা পদ্মা নদীর একটি শাখার খুব কাছাকাছি অবস্থান এবং পটভূমিতে সবুজ মাঠ আমার মনে অবিস্মরণীয় ছাপ রেখে দিয়েছিল।

স্কুল কমিটি ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব লিটন ঢালীর অনুরোধে আমরা শিলিমপুর জুনিয়র হাই স্কুলের জন্য একটি ছোট প্রকল্প করতে রাজি হয়েছি।

বন্ধুগণ!

আমাদের বিদেশমন্ত্রী শ্রীমতি সুষমা স্বরাজ গত বছরের অক্টোবর মাসে তাঁর ঢাকা সফরকালে এই প্রকল্পটি উদ্বোধন করেছিলেন। জনাব লিটন ঢালী, বিদ্যালয় কমিটির সভাপতি জনাব ফজলুল হক স্বপন ও প্রধান শিক্ষক মহোদয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

আমাদের মন্ত্রী মহোদয়ার নির্দেশনা অনুযায়ী প্রকল্পটি নির্ধারিত একবছর সময়ের আগেই সম্পন্ন হয়েছে।

নির্ধারিত সময়ে প্রকল্পটি সম্পন্ন করার জন্য আমি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, বিদ্যালয় কমিটির সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক মহোদয়ের কঠোর পরিশ্রমের প্রশংসা করি। তাদের সক্রিয় সমর্থন এবং সহযোগিতা ছাড়া এটি কঠিন হত।

ভারত সরকার বিদ্যালয়ের নতুন ভবন নির্মাণের জন্য ৭০ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছে। নতুন ভবনের নকশায় চারতলার ভিত্তি দেয়া হয়েছে। আমি আশা করি আগামী বছরগুলিতে বিদ্যালয় ভবন আরো বর্ধিত করা হবে।

আমি জানতে পেরেছি যে, শিলিমপুর বিদ্যালয়ের প্রাতিষ্ঠানিক ফল খুবই সন্তোষজনক।

আশা করি নতুন বিদ্যালয় ভবনটি স্থানীয় শিক্ষার্থীদের উপকারে আসবে।

গতবারের সফরে আমি শিক্ষার্থীদের জন্য কয়েকটি কম্পিউটার ও বই উপহার দিয়েছিলাম।

এই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মানসম্পন্ন শিক্ষাদানের লক্ষ্যে আমি শিলিমপুরবাসীদের জন্য নতুন বিদ্যালয় ভবনের উদ্বোধন ঘোষণা করছি।

২০১৮ সালে আমি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রথম তিনজন শিক্ষার্থীর জন্য ১০ হাজার, ৮ হাজার ও ৫ হাজার টাকার তিনটি পুরস্কার ঘোষণা করছি। আমি প্রধান শিক্ষক মহোদয়ের কাছে এই অর্থ হস্তান্তর করছি।

আজ এখানে উপস্থিত থেকে এই অনুষ্ঠানকে সার্থক করার জন্য আমি আপনাদের সবাইকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

আমি শিক্ষার্থী, অভিভাবক, শিক্ষক ও বিদ্যালয় কমিটির সদস্যগণ ও গ্রামবাসীদের নতুন ভবনের জন্য অভিনন্দন জানাই।

আমি শিক্ষার্থীদের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করছি।

নমস্কার!

****